Theme images by kelvinjay. Powered by Blogger.

Breaking News

Banner


Trulli

ভিডিও

জাতীয়

আন্তর্জাতিক

লাইফস্টাইল

TECH ঝলক

Sports ঝলক

বিনোদন ঝলক

» » » দুর্নীতিগ্রস্ত প্রাক্তন শিক্ষকের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ।

Ek Jholok
অভিযুক্ত ডাঙ্গা হাই মাদ্রাসার প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক সৈয়দ ইজাজ আহমেদ।
নিজস্ব প্রতিনিধি : দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার বনহুগলি সোনার পুর অঞ্চলে ডাঙ্গাহাই মাদ্রাসার এক প্রাক্তন হেড মাষ্টার সৈয়দ ইজাজ আহমেদের পিএফ পেমেন্ট নিয়ে জেলার স্কুল পরিদর্শক অনিন্দ্য চ‍্যাটাজির বিরুদ্ধে বেনিয়মের অভিযোগ তুলেছেন ওই স্কুলের বর্তমান টিচার্স ইন চার্জ চম্পক‌ নাগ। চম্পকবাবুর বক্তব্য, স্কুলের প্রাক্তন এই হেড মাষ্টার তার মেয়াদ কালে স্কুলের বিভিন্ন বিভাগের সরকার অনুদানের টাকা ব‍্যাপকভাবে  নয়ছয় করেছেন। শুধু তাই নয় অন‍্যায়ভাবে স্কুলের একাধিক শিক্ষকদের পি এফের টাকাও আত্মসাত করেছেন।

বিগত ২০০৭-৮ থেকে ২০১৪-১৫ প্রায় সব বছরেই স্কুলের সরকারি অনুদানের টাকা নয়ছয় করার ভুরিভুরি অভিযোগ তখনই তার বিরুদ্ধে ওঠে।যা নিয়ে তৎকালীন জেলা শাসকের নেতৃত্বে একটি তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয় যার রিপোর্টের প্রতিছত্রে এই দুর্নীতি টাকা নয়ছয়কেই মান‍্যতা দেওয়া হয়।যারা বিরুদ্ধে আবার দুদুটি প্রতারণা ও চিটিং বাজীর মামলা রুজু হয় বর্তমানে যা বারুইপুর আদালতের বিচারাধীন।একই সঙ্গে দুর্নীতিগ্রস্ত এই শিক্ষকের বিরুদ্ধে রাজ‍্য ভিজিলেন্স কমিশনেও অভিযোগ দায়ের হয়েছে যার তদন্ত চলছে।

সুতরাং এহেন আপাদমস্তক দুর্নীতিগ্রস্ত শিক্ষক তার পি এফ ফান্ডের টাকা পেয়ে গেলেন তাই‌ নিয়ে স্কুলের বর্তমান টিচার্স ইন চার্জ চম্পক‌ নাগ বলেন,এই শিক্ষকের অন‍্যায় আচরণের জন্য স্কুলের ছয়জন শিক্ষক তাদের পি এফের টাকা আজো পায়নি যার পুরোটাই অভিযুক্ত আত্নসাৎ করেছেন। এদের মধ্যে দুজন শিক্ষক ইতিমধ্যেই মারা গিয়েছেন।তাই কিভাবে স্কুলের বর্তমান কতৃপক্ষের সাথে কোন আলাপ আলোচনা ছাড়াই এক প্রকার তাদের সবাইকে অন্ধকারে রেখে এই টাকা পেমেন্ট করা হয়েছে তাই নিয়ে উঠছে প্রশ্ন।যারা পিছনে জেলার স্কুল পরিদর্শক অনিন্দ্য চ‍্যাটাজির বিরুদ্ধে উঠছে দুর্নীতিকে প্রশ্রয় দেওয়ার অভিযোগ। যদিও এ ব‍্যাপারে জেলার স্কুল পরিদর্শক অনিন্দ্য চ‍্যাটাজির প্রতিক্রিয়া হলো, যেটা হয়েছে সবটাই নিয়ম মেনে, অবৈধ কোন কাজ তিনি করেননি। এদিকে এই ঘটনায় উপযুক্ত তদন্ত চেয়ে গত ৩ এপ্রিল কোলকাতা হাইকোর্টে রিট মামলা দায়ের করা হয়েছে,যা খুব শীঘ্রই শুনানি শুরু হবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply