Theme images by kelvinjay. Powered by Blogger.

Breaking News

ভিডিও

জাতীয়

আন্তর্জাতিক

লাইফস্টাইল

TECH ঝলক

Sports ঝলক

বিনোদন ঝলক

» » » অনুব্রত সামনেই তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব। ব্লক সভাপতি নিজেই জানেন না ব্লকের ভোটার কত, ক্ষুব্ধ অনুব্রত।



বিভিন্ন কর্মী সভার মতোই এদিনও কর্মীদের ক্লাস নিচ্ছিলেন অনুব্রত। একের পর এক পঞ্চায়েত ধরে ধরে ক্লাস নেওয়ার সময় নগরী পঞ্চায়েতের অঞ্চল প্রেসিডেন্ট সঞ্জিত রায়কে জিজ্ঞাসা করেন ভোট কেমন হবে ? কত লিড হবে ? সঠিক উত্তর দিতে পারলেননা তিনি। এরপর পঞ্চায়েতের প্রধান গৌতম মণ্ডলকে ডেকে জিজ্ঞাসা করেন পঞ্চায়েতের তৃণমূলের অবস্থা এত খারাপ কেন। তিনি জানান এখানে সময় মত মিটিং করা হয় না, ডাকলে আসে না, সবাই নিজের নিজের মত চলে। অনুব্রত মণ্ডল এক বুথ প্রেসিডেন্ট কে দাঁড় করিয়ে জিজ্ঞাসা করেন এখানে হারলেন কেন? উত্তরে তিনি জানান ঠিকমতো মিটিং করা হয় না, অনুব্রত মণ্ডল বলেন মাসে দুটো করে মিটিং হয় ? উত্তর আসে না। এরপর চরম রেগে যান অনুব্রত। এবং নির্দেশ দেন অঞ্চল প্রেসিডেন্ট কে পদ থেকে সরিয়ে দেওয়ার জন্য। পাশাপাশি তিনি বিভিন্ন পদাধিকারী তৃণমূল কর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন লোকসভায় ভাল ফল না হলে ভোটের পরেই পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হবে তাদের।

 সিউড়ি শহরের জলের সমস্যা দীর্ঘদিনের। জলের কোন সমস্যা নেই একথা পৌরসভা বারবার দাবি করলেও জলের সমস্যা যে এখনো মেটেনি তার উদাহরণ পাওয়া গেল এ দিন কেষ্টর কর্মীসভায়। সিউড়ি টাউনের টাউন প্রেসিডেন্টকে পাশে দাঁড় করিয়ে তৃণমূলের অন্য এক কর্মীকে নির্দিষ্ট কয়েকটি ওয়ার্ড এর জন্য জিজ্ঞাসা করেন তৃণমূলের ভোটের মাত্রা এত কম কেন। তিনি পষ্ট ভাবে জানিয়ে দেন জলের সমস্যা এখানকার দীর্ঘদিনের, এখনো জল বাড়ি বাড়ি পৌঁছাতে পারেনি আমরা। সে কারণেই মানুষ ক্ষুব্দ।

সবশেষে ব্লক সভাপতি স্বর্ণ সিংহকে মঞ্চে ডাকেন অনুব্রত। প্রথমেই ব্লক সভাপতি কে জিজ্ঞাসা করেন ব্লকের ভোটার কত। ব্লক সভাপতি বলেন একটু দেখে বলতে হবে। এরপর প্রায় মিনিট খানেক কাগজের পাতা উল্টে উল্টে  উত্তর দেন তিনি। এতেও যে অনুব্রত চরম রেখেছেন তা উনার চোখ মুখেই পষ্ট।

ব্লকে ব্লকে কর্মীদের নিয়ে সভা করছেন অনুব্রত এদিন বীরভূমের সিউড়ি ইনডোর স্টেডিয়ামে এক নম্বর ব্লকের কর্মীদের নিয়ে সভা করলেন অনুব্রত।

«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply