Theme images by kelvinjay. Powered by Blogger.

Breaking News

ভিডিও

জাতীয়

আন্তর্জাতিক

লাইফস্টাইল

TECH ঝলক

Sports ঝলক

বিনোদন ঝলক

হার্দিক প্যাটেলকে চড়, হেনস্থা। Ek Jholok



বৃহস্পতিবার দিল্লিতে বিজেপি সাংসদ জিভিএল নরসিংও রাওকে লক্ষ্য করে জুতো ছোঁড়া হয়। আজ এই কাণ্ড। শুক্রবার সকালে গুজরাটের সুরেন্দ্রনগর জেলায় কংগ্রেস আয়োজন করেছিল জন আক্রোশ সভা। মঞ্চে বক্তব্য রাখছিলেন কংগ্রেস নেতা হার্দিক প্যাটেল। সবকিছু ঠিকঠাকই চলছিল। হাঠাত্ সাদা পাজামা পাঞ্জাবি পরে এক ব্যক্তি উঠে এসে জোরাল থাপ্পড় মারেন হার্দিককে। সঙ্গে সঙ্গেই ওই ব্যক্তিকে ধরে ফেলেন কংগ্রেস কর্মীরা। শুরু হয়ে যায় প্রবল হুড়োহুড়ি।

তাজা বোমা উদ্ধার। গ্রেফতার বিজেপি কর্মী। অভিযোগ পাল্টা অভিযোগ। Ek Jholok



বাগদা জগদীশপুর গ্রামে এক বিজেপি কর্মীর বাড়ি থেকে ৬ টি বোমা উদ্ধার করল বাগদা থানার পুলিশ। উত্তর ২৪ পরগনার বাগদা থানার পুলিশ গোপন সূত্রে খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার ভোরে জগদীশপুরের  বিষ্ণুপদ রায় (৪২) এর  বাড়িতে হানা দিয়ে তার রান্না ঘর থেকে ৬ টি তাজা বোমা উদ্ধার করে l এবং বিষ্ণুপদ রায়কে গ্রেপ্তার করে l বাগদা বিজেপির পক্ষ থেকে বিষ্ণুপদ রায়কে নিজেদের কর্মী বলে দাবি করে l

শালীনতার সীমা ছাড়িয়ে দীলিপ ঘোষের মন্তব‍্য,এখনি ঘাড় ধাক্কা দিয়ে বেড় করে দেওয়া উচিত

ফেরদৌস আহমেদ

শুভাশিস ঘোষ- মুসলিমদের সম্পর্কে বিজেপির মনের ভিতর কতটা ঘৃণা পোষন করেন তারই এক নক্কারজনক আভাস পাওয়া গেল সম্প্রতি এরাজ‍্যে পারফর্ম করতে আসা জনপ্রিয় দুই বাংলাদেশী অভিনেতাকে নিয়ে রাজ‍্য বিজেপির সভাপতি দীলিপ ঘোষের প্রতিক্রিয়াতে।এদিন গাজি নূর ও 
ফেরদৌস আহমেদ কে এখনই ঘাড় ধরে দেশের বাইরে বেড় করে দেওয়ার যে নিদান দীলিপ ঘোষ দিয়েছেন তা শুধু অশালীন বললে কম বলা হয় বরং বলা যায় এধরনের মন্তব‍্যের মধ‍্য দিয়ে তিনি পড়শীদেশ সম্পর্কে কতটা ঘৃণা মনের গভীরে পোষন করেন তারই একটা ইঙ্গিত দিলেন বলা যায়, যার সাথে তীব্র মুসলিম বিরোধী মনোভাবটাও একটা কাজ করেছে। প্রশ্ন হলো একজন জাতীয় দলের রাজ‍্য সভাপতি হয়ে তিনি তার পড়শী দেশের দুজন নাগরিক সম্পর্কে এরকম মন্তব‍্য করে কি গোটা বাংলাদেশের মানুষকেই অপমান করলেন? শুধু তাই নয় এধরনের অসহিষহ্নতা দেখানোর ফলে সেদেশের মৌলবাদীদেরই হাত শক্ত করলেন যার ফল ভুগতে হতে পারে ওই দেশের হিন্দু বাঙালিদের। আমার মনে হয় এরাজ‍্যে এত নিম্নরুচির রাজনৈতিক নেতৃত্ব ইতিপূর্বে দেখা যায়নি এখন যা আমাদের ভাবাচ্ছে। যদিও এই চরম অসৌজন‍্যতা দেখানোর মধ‍্যে দিয়ে দীলিপ ঘোষেরা আরো একবার মুসলিম বিরোধী মেরুকরনের রাজনীতিকেই প্রাধান‍্য দিলেন যার মূল অঙ্কই হলো রাজ‍্যে একবার ক্ষমতায় আসীন হলে এন,আর,সি,র মাধ‍্যমে রাজ‍্যের প্রায় দেড় কোটি বাঙালি মুসলিমকে দেশ ছাড়া করার পরিকল্পনা বাস্তবায়িত করা।যারই পিছনে দেশের অবাঙালি হিন্দীভাষী গুজরাটীদের অপরিসীম উস্কানি থাকতে পারে। যেখানে প্রয়োজনে বাংলাদেশ দখলের পরিকল্পনা নেওয়ার কোন সুদূরপ্রসারি অভিপ্রায় আছে কিনা সেটা সময় বলবে। তবে একটা জিনিষ স্পষ্ট তাহল আরএসএসের আঁতুড় ঘরে বেড়ে ওঠা দিলীপ ঘোষেরা আগামী দিনেও এভাবেই এক সম্প্রদায়ের প্রতি ঘৃণা বিদ্বেষ ছড়াবে যা এক ভয়ঙ্কর ভাইরাস হয়ে বাঙালি সমাজকে রোগগ্রস্ত পঙ্গু জরাজীর্ণ ব‍্যাধিতে পরিনত করে ছাড়বে, যেটা করতে পারলে উন্নত মেধা ও সংস্কৃতির ধারক বাহক বাঙালি শেষ হয়ে যাবে অচিরেই।

হাইকোর্টের নির্দেশে বন্ধ টিকটক অ্যাপ।



টিকটক অ্যাপ ভারতে বন্ধ করে দেয়া হলো

আলোচিত এই অ্যাপটি ব্যবহার করে পর্ণগ্রাফি ছড়ানো হচ্ছে এমন উদ্বেগ তৈরি হওয়ার পর অ্যাপ স্টোর থেকে টিকটক অ্যাপ সরিয়ে ফেলার নির্দেশ দিয়েছিলো ভারতের মাদ্রাজ হাইকোর্ট।

এই গরমে সুস্থ থাকতে অবশ্যই জানা জরুরি। Ek Jholok

খাবার কেনার টাকাও নেই! Ek Jholok



রাষ্ট্রায়ত্ত সংযোগ সংস্থা ‘বিএসএনএল'-এর লক্ষাধিক কর্মচারী ফেব্রুয়ারি মাসে বেতন পাননি৷ এমনই এক কর্মচারীর অসহায়তার ভিডিও ইতিমধ্যে ছড়িয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়৷

সকলকেই নির্বাচনে অংশগ্রহণ করা উচিত ৷ অভিনব উদ্যোগ বারুইপুর মহাকুমা দপ্তর...



বাবলু প্রামাণিক, বারুইপুর - দক্ষিণ ২৪ পরগনা বারুইপুর মহাকুমার  দপ্তরের এর উদ্যোগে আজ দুপুরে  নির্বাচনে যাতে সকলেই অংশগ্রহণ করতে পারে তার জন্য অভিনব উদ্যোগ নিল বারুইপুর মহকুমা দপ্তর ৷ নির্বাচন উপলক্ষ্যে তৈরি করা হয়েছে মেয়ের দের জন্য কানের দুল এবং ছেলেদের জন্য হাতের উৎসব ব্যাণ্ড ৷ আজ এইগুলি আত্মপ্রকাশ করলেও আগামীদিনে সবার কাছেই এইগুলি পৌঁছে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন বারুইপুরের মহকুমাশাসক ৷ দুটিতেই রয়েছে নির্বাচনের লোগো ৷ এছাড়া মহকুমা শাসকের দপ্তরের উদ্যোগে একটি নাটকও উপস্থাপনা করা হয়েছে যার নাম ভোরের আলো ৷ নাটকের মধ্যে বিভিন্ন পেশার মানুষদের মনোভাব তুলে ধরা হয়েছে ৷ যে যে পেশাতেই ব্যস্ত হোক না কেন সকলেরই নির্বাচনে অংশগ্রহণ করা উচিত ৷ সেই বার্তাই দেওয়া হয়েছে ৷ মহিলা, বয়স্ক এবং বিশেষ ভাবে সক্ষম অর্থাৎ দিব্যাঙ্গ ভোটার রা  যাতে এই নির্বাচনে অংশ নিতে পারেন তার উপর জোর দেওয়া হচ্ছে ৷