Theme images by kelvinjay. Powered by Blogger.

Breaking News

ভিডিও

জাতীয়

আন্তর্জাতিক

লাইফস্টাইল

TECH ঝলক

Sports ঝলক

বিনোদন ঝলক

» » » » ভালোবাসা দিবসে ভালোবাসার আত্মবলিদান... | Ek Jholok



সারা বিশ্বজুড়ে যখন পালন হচ্ছে  "ভালোবাসা দিবস"। ঠিক তখনই এক প্রেমিক তাঁর প্রেমিকার কাছে প্রেমে ধোঁকা খেয়ে আত্মহত্যার পথ বেছে নিল। এমনই একটি বেদনাদায়ক ঘটনা ঘটেছে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার কোলাঘাটের দক্ষিণ জিয়াদা গ্রামে। ঘটনাটি ঘটায় এলাকায় নেমে এসেছে শোকের ছায়া। মৃত প্রেমিকের নাম বিশ্বজিৎ ওঝা। বছর পঁচিশের যুবক বিশ্বজিৎ কর্মসূত্রে আরবের ওমানে থাকত। দুদিন আগেই বাড়ি ফিরেছে সে। বিদেশে থাকাকালীন ফেসবুকে আলাপ হয় কলকাতার বেলঘরিয়ার এক যুবতীর সাথে। ধীরে ধীরে গড়ে ওঠে প্রেমের সম্পর্ক।



পরিবারের অভিযোগ ওই যুবতী বিবাহিত এবং দুই সন্তানের মা হওয়া সত্বেও বিশ্বজিতের সাথে ফেসবুকে প্রেমের সম্পর্ক চালিয়ে যায়। বিশ্বজিৎ বাড়ি ফিরে আলোচনা করে যুবতীকে বিয়ের প্রস্তাব দেওয়াতেই বেঁকে বসে সে। জানিয়ে দেয় সে বিয়ে করতে পারবে না। কারন সে বিবাহিত ও তার দুটি সন্তান রয়েছে। ঘটনা জানার পরই বিশ্বজিৎ নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টটি ডিঅ্যাকটিভেট করে আজ আত্মহত্যা করে। মায়ের পারণের একটি কাপড় দিয়ে সিলিং ফ্যানে ঝুলে আত্মহত্যা করে সে।



আজ বাবা রঞ্জিত ওঝা কাজে যাওয়ার সময় ছেলের সাথে দেখা করার জন্য ডাকাডাকি করলে সাড়া না পেয়ে জানলা দিয়ে দেখেন ছেলের ঝুলন্ত দেহ। তখনই পরিবারের লোকেরা দরজা ভেঙে মৃতদেহ নামান। স্থানীয় চিকিৎসকরা বিশ্বজিৎকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। খবর পেয়ে পাঁশকুড়া থানার পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে। মৃতের ভাই অভিজিৎ ওঝা বলেন , আমার দাদা একটি মেয়ের সাথে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছিল। সেই মেয়েটি হঠাৎই দাদাকে না বলে দেয়। সে পূর্ব বিবাহিত ও তার সন্তান রয়েছে বলেও জানিয়ে দেয়। এ কথা শোনার পরই দাদা আঘাত পেয়ে আত্মহত্যার পথ বেছে নেয়। পাশাপাশি দাদার মৃত্যুর সঠিক তদন্তেরও দাবি জানিয়েছেন তিনি। পুলিশ সূত্রে জানা যায়,  মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য তমলুক জেলা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে এবং একটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করা হয়েছে।



না জানি আজ সারা বিশ্বে প্রেমে আঘাত পেয়ে হয়তো এরকম কত বিশ্বজিৎ আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছে।

«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply