Theme images by kelvinjay. Powered by Blogger.

Breaking News

ভিডিও

জাতীয়

আন্তর্জাতিক

লাইফস্টাইল

TECH ঝলক

Sports ঝলক

বিনোদন ঝলক

» » » » » » মাঝেরহাট দুর্ঘটনার জের, বারাসাত উড়ালপুর রক্ষায় হকার উচ্ছেদ করা হতে পারে।

বারাসাত উড়ালপুর

মাঝেরহাট কাণ্ডের পরে গত মঙ্গলবার নবান্নে  ইঞ্জিনিয়ারদের নিয়ে বৈঠকে বসেছিলেন পূর্তমন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস। উপস্থিত ছিলেন পূর্তসচিব অর্ণব রায়ও ।  বৈঠকে এক ইঞ্জিনিয়ার বলেন বারাসাতের উড়ালপুরের তলা হকারদের দখলে থাকার ফলে ব্রিজ রক্ষনাবেক্ষন ও  মেরামতির কাজে খুব অসুবিধা সৃষ্টি হচ্ছে। এর জবাবে সেদিন পূর্তমন্ত্রী বলেন, ‘‘বিষয়টি আমাদের জানা রয়েছে এবং এ বিষয়টি মুখ্যমন্ত্রী নিজে দেখছেন।’’

উক্ত  বৈঠক শেষে বারাসাত পৌরসভাকে বেশ তৎপর হতে দেখা গেলো। ইতিমধ্যে পূর্ত দফতরের কর্তাদের সঙ্গে নিয়ে বারাসত পুরসভার চেয়ারম্যান সুনীল মুখোপাধ্যায় উড়ালপুরের অবস্থা স্বচক্ষে দেখতে গিয়ে ওভার ব্রিজের অবস্থা দেখার পর তাৎক্ষণিক ভাবে সুনীলবাবু বলেন, ‘‘ব্রিজের তলা সম্পূর্ণ  হকারদের দখলে থাকায় ব্রিজের দেয়াল ও গার্ডার  ঢাকা পড়ে গিয়েছে, যার ফলে সেতুর অবস্থা ভালোভাবে পরীক্ষাও করা যাচ্ছেনা। তাই হয়তো ব্রিজের তলা থেকে হকারদের সরে যেতে হতে পারে।

প্রসঙ্গত, হকারদের পুনর্বাসনের জন্য, ১৭৫টি কংক্রিটের স্থায়ী দোকানঘর তৈরি করেছে বারাসত পুরসভা। কিন্তু, মাঝেরহাটের দুর্ঘটনার পর ব্রিজের তলায় দোকান বসিয়ে ঝুঁকি নিতে চাইছে না বারাসাত পুরসভা। তাই ওই কংক্রিটের স্থায়ী দোকানঘর কাউকেই হস্তান্তর করা হবে না বলেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিয়েছে পুরসভা।

সেতুর নীচে বর্তমানে প্রায় ৩০০ হকার রয়েছে এবং এতে সরাসরি অনেক মানুষের জীবন জড়িয়ে রয়েছে। সেতুর  নীচের হকারদের পুনর্বাসনের কী হবে? বারাসত পুরসভার চেয়ারম্যান সুনীল মুখোপাধ্যায় বলেন, সকলের সুরক্ষার কথা ভেবেই আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি, ব্রিজের তলায় যে কংক্রিটের দোকানঘর বানানো হয়েছে, তা কাউকে হস্তান্তর করা হবে না। সমস্ত দোকানগুলি এখন তালাবন্ধই থাকবে। পরবর্তীকালে হয়তো ভেঙে ফেলতে হবে। এদিকে পুরসভা সূত্রে জানানো হয়েছে, এ ব্যাপারে পরে ভাবনাচিন্তা করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply